১১ অগাস্ট ২০২০, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন

খেলাধুলা
সাকিবের সেই ব্যাট বিক্রি হলো আকাশ ছোঁয়া মূল্যে
tea

ইউ.এস. বাংলা ডেস্ক: যে ব্যাট দিয়ে সাকিব আল হাসান ২০১৯ সালের আইসিসি ক্রিকেটে বিশ্বকাপ মাতিয়েছিলেন, সেই ব্যাটটি করোনাভাইরাসে দুস্থদের সহায়তার জন্য নিলামে তুলেছিলেন।

পাঁচ লাখ টাকা ভিত্তিমূল্যের চার গুণ বেশি টাকা দিয়ে এটি কিনে নেন এক আমেরিকা প্রবাসী বাংলাদেশী। অর্থাৎ ব্যাটটি বিক্রি হয়েছে ২০ লাখ টাকায়। নির্ধারিত সময় আজ বুধবার রাত ১১টার কিছু পরে শেষ হয় নিলাম। ২০ লাখ টাকায় অকশন ফর অ্যাকশন-এর ফেসবুক পেজে বিড করে ব্যাটটি কিনে নিয়েছেন রাজ নামের একজন আমেরিকা প্রবাসী ব্যাবসায়ী।

তিনি নিউ জার্সিতে থাকেন। ব্যাট নিলামের বিষয়টি গতকাল রাতেই সাকিব বিষয়টি নিশ্চিত করেছন। আজ বুধবার দুপুর থেকে ব্যাটটি নিলামে তোলা হয়, চলে রাত ১১টা পর্যন্ত। ব্যাটটির ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছিল পাঁচ লাখ টাকা। নির্ধারিত সময় শেষে পাঁচ লাখ টাকার ওপরে সর্বোচ্চ দর হাঁকানো ব্যাক্তিকে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে; এমন ঘোষণা আগে থেকেই দেওয়া ছিল।

নিলাম থেকে যে অর্থ পাওয়া যাবে তার পুরোটাই দ্য সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশনে চলে যাবে। যেটা ব্যয় করা হবে অসহায়, দুস্থদের জন্য। সাকিব বলেছিলেন, আমি আমার প্রিয় একটি ব্যাট নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই ব্যাট দিয়ে অনেক ম্যাচ খেলেছি। অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে এই ব্যাটের সঙ্গে। যেহেতু বেশ কিছুদিন আমি ক্রিকেটের সঙ্গে নেই।

সুতরাং, এই ব্যাটের সঙ্গে আমার আপাতত সংযোগ নেই। নিলামের ব্যাপারে পরে অনলাইনে আসব এবং বিস্তারিত কথা হবে। এই ব্যাট বিক্রি করে যে টাকা হবে তার পুরোটাই সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশনে জমা হবে এবং সেখান থেকে দুস্থ মানুষদের সহযোগিতা করা হবে। এই ব্যাটটি দিয়ে ২০১৯ বিশ্বকাপে চোখ ধাঁধানো নৈপুণ্য দেখান সাকিব। আট ম্যাচে ৩৬.২৭ গড়ে নেন ১১ উইকেট।

ব্যাটিংয়ে ৬০৬ রান করেন অতিমানবীয় ৮৬.৫৭ গড়ে। সেঞ্চুরি ছিল দুটি, হাফসেঞ্চুরি পাঁচটি। কেবল একটি ম্যাচেই হাফসেঞ্চুরি করার আগে আউট হন তিনি। অকশন ফর অ্যাকশন তাদের ফেসবুক পেইজে এই নিলাম শুরু করে। পোস্টে কমেন্ট করে, অকশন ফর অ্যাকশনের পেইজে ইনবক্সে বিড করেছেন আগ্রহীরা। বাংলাদেশ জন্য কোনো ক্রিকেটারের চ্যারাটি নিলাম এবারই প্রথম। শুরুতেই এতো সাড়া পেয়ে উচ্ছ্বাসিত সাকিসহ অকশনের অন্য আয়োজকরা, ধন্যবাদ জানিয়েছেন দেশের মানুষকে। সাকিব বলেছেন, দেশের মানুষের হাসিই তার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

সুত্রঃ আমাদের সময়

সম্পর্কিত খবর

একটি মন্তব্য করুন

সম্পর্কিত মন্তব্য

img
img
img